Biblebani.net
আপনি কি যীশু খ্রিস্টের পুনরুত্থানে বিশ্বাস করেন না?

আপনি কি যীশু খ্রিস্টের পুনরুত্থানে বিশ্বাস করেন না?

আপনি কি যীশু খ্রিস্টের পুনরুত্থানে বিশ্বাস করেন না?

যীশু খ্রিস্ট যে মৃত্যু থেকে জীবিত হয়ে উঠেছেন তাই খ্রিস্টীয় বিশ্বাসের কেন্দ্র বিন্দু। পুনরুত্থান ছাড়া, খ্রিস্টধর্ম অসার। সাধু পৌল বলেছিলেন: “যদি খ্রীষ্ট উত্থাপিত না হয়ে থাকেন, তবে আমাদের প্রচার অসার হয়েছে এবং আপনার বিশ্বাসও অসার হয়েছে” (১ করিন্থীয় ১৫:১৪)। খ্রীষ্টের পুনরুত্থান বিশ্বাসের একটি স্তম্ভ। শুধুমাত্র ঈশ্বর আমাদের তার সত্য সম্পর্কে সন্তুষ্ট করতে পারেন এবং পুনুরুত্থান সম্পর্কে অন্যান্য যে ব্যাখ্যা রয়েছে সেগুলো পারেনা।

পুনরুত্থানের প্রমাণ

যিশুর পুনরুত্থানের প্রমাণটি খুবই শক্তিশালী। যদিও অনেক মানুষ এটি অস্বীকার করে। তারা বিভিন্ন বিকল্প ব্যাখ্যা দিয়েছেন। যাইহোক, সেগুলো খুবই অসম্ভাব্য।

তত্ত্ব ১: যীশু মারা যাননি, তিনি শুধুমাত্র অচেতন হয়েছিলেন। রোমান সেনারা মানুষকে হত্যা করার ক্ষেত্রে বেশ দক্ষ ছিল। যীশু ক্রুশবিদ্ধ হওয়ার পরে, তারা তার পা ভেঙ্গে দিয়েছিল এবং তাঁর মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার জন্য একটি বল্লম দিয়ে তাকে বিদ্ধ করেছিল। সেই একই ব্যক্তি কি দুদিন পরে এমন ভাল আকৃতিতে আসতে পারে যেন তার শিষ্যরা বিশ্বাস করে যে তিনই ঈশ্বরের পুত্র?

তত্ত্ব ২:  শিষ্যরা গল্পটি তৈরি করেছেন তবুও সাধারণ জেলেদের একটি দল এমন এক কাহিনী নিয়ে আসবে যা পৃথিবীকে বদলে দিয়েছে, এবং তাদের প্রত্যেকে কয়েক দশক ধরে এটিকে প্রতিপন্ন করার জন্য ইচ্ছুক ছিল এবং শেষ পর্যন্ত এটির জন্য মরতে হল, এটা চরমপন্থীদের কাছে অসম্ভব। তাছাড়া, যিহুদিরা যদি প্রতারণা করে থাকে তাহলে তা যিহুদি নেতাদের দ্বারা প্রকাশিত হবে।

তত্ত্ব ৩: শিষ্যদের ভ্রান্তি (হ্যালুসিনেশন) ছিল স্বল্পকালীন সময়ের জন্য একজন বিভ্রান্ত হতে পারে, চল্লিশ দিনের বেশি পাঁচশো লোকের একসাথে ভ্রান্তি হওয়া সম্ভব নয়। এছাড়াও, বিভ্রান্ত হয়ে তারা মাছ খেতে না (দেখুন লুক ২৪: ৪২-৪৩)। এবং হ্যালুসিনেশন হয়েছে বলে যে দাবি করা হয়েছিল সেই প্রশ্ন উত্তর এখনো দেওয়া  যায়না যে: শরীর কোথায় ছিল?

তত্ত্ব ৪: পুনরুত্থান একটি কাল্পনিক ঘটনা যা সময়ের সাথে তৈরি হয়েছে। সুসমাচারগুলিতে প্রত্যক্ষ সাক্ষী হিসাবে লোকেরা আছে, মিথ্য হিসাবে নয়। মার্কের সুসমাচারটি উৎসগুলোর ব্যবহার করে যা পুনরুত্থানের পর সাত বছরের মধ্যে থেকে প্রাপ্ত তারিখ প্রকাশ করে – যা পৌরাণিক বিকাশের জন্য খুবই অল্প। পিতর, একজন প্রত্যক্ষদর্শী, বলেন যে সুসমাচারের গল্পটি ‘চটপটে পরিকল্পিত পৌরাণিক কাহিনী’ নয় (২ পিতর ১:১৬)। যখন স্বচক্ষে দেখা একজন সাক্ষী বলেন যে, ‘এটি একটি মিথ্য না’, তখন তা সমস্ত জটিলতাকে সমাধান করে। তবুও পিতর মিথ্যাও বলতে পারেন (তত্ত্ব ২ দেখুন), কিন্তু এটা স্পষ্ট যে এটাকে পৌরাণিক কাহিনী বলা বোকামি।

হ্যাঁ, যীশু খ্রিস্ট মৃত্যু থেকে জীবিত হয়ে উঠেছেন। এটি প্রমাণ করে যে তিনি হলেন সেই ব্যাক্তি যিনি: ঈশ্বরের পুত্র। যিশুর পুনরুত্থান আমাদেরকে তার ওপর বিশ্বাস করার এবং তাঁকে অনুসরণ করার যথেষ্ট কারণ দেয়। যিশুর পুনরুত্থানের কারণে আমরা তাঁর প্রতিজ্ঞাকে বিশ্বাস করতে পারি যে, যারা তাঁকে বিশ্বাস করে, তারা অনন্তজীবন পাবে এবং শেষকালে মৃতদের মধ্যে থেকে পুনরুত্থিত হবে।

আপনার প্রশ্ন: পুনর্জন্ম কি বিদ্যমান?

পুনর্জন্ম বিদ্যমান নেই। বাইবেলের একটি পদে বিশ্রামের বিষয়ে বলা হয়েছে: “… ঈশ্বর ঠিক করে রেখেছেন যে, প্রত্যেক মানুষ একবার মরবে এবং তার পরে তার বিচার হবে।” (ইব্রীয় ৯:২৭)।

পুনর্জন্মের পরিবর্তে অনন্তকালীন জীবন

পুনর্জন্ম এর চিন্তা ধর্ম এবং জগত থেকে এসেছে যেখানে সবকিছু একটি বৃত্তাকার বলয়ের মধ্যে থেকে যায়। কিছুই কখনও পরিবর্তন হয়না, পৃথিবী সত্যিই কোথাও যাচ্ছে না। যা ছিল, আছে, এবং হবে। বাইবেল আমাদের জীবনের এবং বিশ্বের উপর একটি সম্পূর্ণ ভিন্ন দৃষ্টি দেয়। ঈশ্বর বিশ্ব সৃষ্টি করেছেন, এবং মানুষকে তাঁর প্রতিমূর্তিতে সৃষ্টি করেছেন। মানুষ ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে, কিন্তু ঈশ্বর তাঁর পুত্র, প্রভু যীশু খ্রীষ্টকে এই দুনিয়াতে আমাদের পাপের জন্য কষ্টভোগ ও মৃত্যুবরণ করতে পাঠিয়েছিলেন। প্রতিটি মানুষের শাশ্বত আত্মা আছে যে শাশ্বত আত্মার একটি শাশ্বত উদ্দেশ্য রয়েছে। একদিন, যীশু খ্রীষ্ট জীবিত ও মৃতদের বিচার করার জন্য এই জগতে ফিরে আসবেন।

খ্রীষ্টের আগমনে সমস্ত মৃতরাই উত্থিত হবে

তাই বাইবেল অনুযায়ী, শুরু থেকে (স্রষ্টা) শেষ পর্যন্ত একটি সরল রেখা (দ্বিতীয় খ্রীষ্টের আগমন) আছে। বাইবেল পরিষ্কারভাবে শেখায় যে শেষকালে মৃতেরা উত্থিত হবে (যেমন ১ করিন্থীয় ১৫: ১২-২৪)। পুনর্জন্মের সাথে মিলিত হওয়া অসম্ভব। যদি মানুষের আত্মা অন্য মানুষের মধ্যে পুনরুত্থিত হয়, তাহলে মৃতদের থেকে কি উত্থিত হবে? কিন্তু যখন আপনি বাইবেলের শিক্ষা উপলব্ধি করেন যে প্রত্যেক মানুষের একটি একক আত্মা আছে এবং যা ঈশ্বরের কাছে যাবে।

মৃতদের পুনরুত্থানের বিষয়ে শিক্ষা থেকে আমাদের এটি বুঝতে সহায়তা করে যে মানুষ কে। আমরা শুধু আমাদের আত্মার নয় আমাদের শরীর আমাদের অনেক বড় একটি অংশ। অতএব দেহ ও আত্মা পুনরুজ্জীবিত হইবে – যদিও আমাদের দেহের তুলনায় নতুন দেহটি অধিকতর মহিমান্বিত হবে (১ করিন্থীয় ১৫: ৩৫-৪৯ দেখুন)।

যীশু খ্রীষ্টের জন্য জীবন যাপন করুন

আমাদের শুধু একটি জীবন আছে। এটা এই জীবন যা নির্ধারিত করবে যে আমরা অনন্তকাল কোথায় ব্যয় করব। এটা সেই জীবন যখন আমরা আমাদের অনন্ত জীবনের জন্য ফল সংগ্রহ করে রাখতে পারি। বাইবেলের শিক্ষা দেয় যে,  “মানুষকে একবারের জন্য মরতে হয়, এবং এর পরে বিচার আসে” যা আমাদের জীবনের একটি বিরাট গুরুত্ব দেয়। তাঁর উপস্থিতি উপভোগের মাধ্যমে এবং যীশু খ্রীষ্টের মাধ্যমে পাপীদের জন্য পরিত্রাণের সুসমাচার প্রচার করে ঈশ্বরকে গৌরব প্রদান করে, পূর্ণরূপে তা পালন করুন।

Biblebani